সমাবেশে ৭ দাবী ২ কর্মসূচী

জাতীয়

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে ৭ দফা দাবি জানিয়েছে বিএনপি। এগুলোর মধ্যে খালেদা জিয়ার মুক্তি ও নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন রয়েছে।

,

সমাবেশ অনুমতি লাভ করে ২২ টি শর্তে।

রবিবার (৩০ সেপ্টেম্বর) বিকেলে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আয়োজিত জনসভা থেকে এ দাবি জানায় দলের নেতারা।

সাত দফা দাবি গুলোর মধ্যে রয়েছে, ১। খালেদা জিয়ার মুক্তি। ২। তারেক রহমানের মামলা প্রত্যাহার। ৩। নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন। ৪। ভোটের আগে সংসদ ভেঙে দেয়া। ৫। ইভিএম পদ্ধতি বাতিল করতে হবে বা চালু করা যাবে না ৬। নির্বাচনে সেনা মোতায়েন। ও ৭। নির্বাচন কমিশন পুনর্গঠন।

সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্যসহ দলের সিনিয়র নেতারা। দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া কারাবন্দি থাকলেও তাকে প্রতীকী প্রধান অতিথি করে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

 

সমাবেশ থেকে দলটি বেশ কয়েকটি কর্মসূচি ঘোষণা করে। এগুলো হলো, আগামী ৩ অক্টোবর দেশের জেলায় জেলায় সমাবেশ, জেলা প্রশাসক বরাবর স্মারকলিপি প্রদান এবং ৪ অক্টোবর মহানগরগুলোতে সমাবেশ ও বিভাগীয় কমিশনার বরাবর স্মারকলিপি প্রদান।

সমাবেশের বক্তব্যে বিএনপি নেতা মওদুদ আহমদ বলেন, আমাদের শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে যদি বাধা দেওয়া হয়, তাহলে এবার আমরাও ছাড় দেবো না।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ নেতারা মাঠ দখলের কথা বলছেন, এখানে মাঠ দখলের প্রশ্ন কেন? যদি মাঠ দখলের কথা বলেন, আমরাও এবার দখল করবো। আর ফাঁকা মাঠে গোল হবে না। এই দিবাস্বপ্ন দেখলে ভুল করবেন।৭

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *